দলে ফিরে যান

মিনহাজ আবেদীন

প্রধান নির্বাহী

প্রভাব সৃষ্টির একটি অধৈর্য আকাঙ্ক্ষা দ্বারা চালিত মিনহাজ তরুণদের জন্য সুযোগ ক্ষমতায়ন করতে ভালবাসেন। ১১ বছর বয়সে যাত্রা শুরু করে তিনি লিডসে ইয়ুথ সার্ভিস ফান্ডিং বৃদ্ধির জন্য সংসদে লবিং করেন। যুব সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়ে তিনি দুইবার হাউস অফ কমন্সে ডিসপ্যাচ বক্সে বক্তব্য রাখেন, ১৭ বছর বয়সে জাতীয় মুখপাত্র হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

বিশ্ব মঞ্চে তার যাত্রা অব্যাহত রেখে আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সচিব মিনহাজকে জাতিসংঘের দাপ্তরিক যুব প্রতিনিধি হিসেবে নিযুক্ত করেন। এই কাজ অব্যাহত রাখার জন্য ২০১৫ সালে গ্লোবাল চ্যারিটি ওয়ার্ল্ড মেরিটে যোগদান করে তিনি বর্তমানে বোর্ডের ট্রাস্টি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন, পূর্বে প্রেস এবং পরে চ্যারিটির জন্য উন্নয়ন।

হাইনেকেন এবং পোর্শে এর সাথে পরামর্শ করার পর মিনহাজ ২০১৬ সালে abedin.co প্রতিষ্ঠা করেন, একটি বিপণন সংস্থা যা জৈব কথোপকথনের মাধ্যমে সারা বিশ্বের ব্র্যান্ডকে প্রসারিত করে। তিন বছরের মধ্যে, আবেদিন কালেক্টিভ লন্ডনে অফিস স্থাপন করে এবং 'দ্যা টাইমস' এবং 'রিড স্মিথ' এর মত ক্লায়েন্টদের সাথে ৫০ কোটিরও বেশি মানুষের কাছে পৌঁছেছে। এটা শোরডিচের একটি চমৎকার দলের সাথে সমৃদ্ধ হতে থাকে।

মিনহাজ ফিউচার ট্যালেন্ট-এ দল থেকে আলাদা হতে পেরে রোমাঞ্চিত এবং সারা দেশ জুড়ে আরো প্রতিভাবান তরুণ সঙ্গীতশিল্পীদের সমর্থন করার জন্য দাতব্য সংস্থাটি কে গড়ে তুলতে এবং গড়ে তুলতে উদগ্রীব।